Adi Sikha - আদি শিখা
6 members
1 photo
22 links
পড়ুন গল্প, উপন্যাস, প্রেম কাহিনী, ভৌতিক কাহিনী, রহস্য-সাসপেন্স, থ্রিলার, আধ্যাত্মিক, রূপকথা, শিশুসাহিত্য, কল্পবিজ্ঞান এবং অন্যান্য।
Download Telegram
to view and join the conversation
মহাভারতের কাহিনী বাংলায় - অভিমন্যু বধ ও চন্দ্রদেবের মধ্যে কি সম্পর্ক?

আমরা সবাই জানি মহাভারতের যুদ্ধের সময় অর্জুন পুত্র অভিমুন্য চক্রব্যূহ ভেঙেছিল। শত্রু পক্ষে বড় বড় বীর ছিল। কিন্তু অভিমন্যু একাই সবাইকে রুখে দিয়েছিল। সে যদি মায়ের গর্ভেই চক্রব্যূহর সম্পূর্ণ রহস্য জেনে যেত তবে সে ই কৌরবদের মৃত্যুর কারণ হত। কিন্তু তা হয়নি। কৌরব পক্ষের বড় বড় যোদ্ধা তাকে ছল করে মেরেছিল। কারণ তার ভাগ্যে আগেই লেখা ছিল যে সে ১৬ বছর পৃথিবীতে থাকতে পারবে। তারপর তাকে স্বর্গলোক ফিরে যেতে হবে।

তাহলে কি অভিমুন্য পৃথিবীতে কোন দেবতার অবতার ছিল?

হ্যাঁ, অভিমন্যু দেবতার অবতার ছিল।

কিন্তু অভিমুন্য কোন দেবতার অবতার ছিল?

এই প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য আমাদের যেতে হবে পুরাকালের সেই সময়ে যখন পৃথিবীতে অশুভ শক্তির বৃদ্ধি রোধ করার জন্য স্বর্গের দেবতাদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছিল।
আরও পড়ুন: http://bit.ly/33FQUyE
কৃষ্ণ জন্মাষ্টমী হিন্দু ধর্মের একটি প্রবিত্র উৎসব যা কৃষ্ণের ( বিষ্ণুর অষ্টম অবতার ) জন্মদিন হিসাবে পালন করা হয়। এই উৎসব বিভিন্ন নামে পরিচিত - জন্মাষ্টমী, গোকুলাষ্টামি, অষ্টমী রোহিণী, শ্রীকৃষ্ণ জয়ন্তী।

জন্মাষ্টমী কখন পালন করা হয়?

হিন্দু পঞ্জিকা অনুসারে, প্রতিবছর ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী দিনে জন্মাষ্টমী পালন করা হয়, যা ইংরেজি ক্যালেন্ডারে আগস্ট এবং সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে কোন একদিন পরে।

বর্তমান বছর ২০১৯ সালে জন্মাষ্টমী পালন করা হবে ২৩ আগষ্ট, ২০১৯ তারিখ শুক্রবার।

তাৎপর্য

হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিশেষত বৈষ্ণবদের কাছে জন্মাষ্টমী একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব। এই উৎসব নানা ভাবে উদযাপন করা হয়। যেমন - ভগবত পুরাণ অনুযায়ী নৃত্য, নাটক যাকে বলা হয় রাসলীলা বা কৃষ্ণ লীলা, মধ্যরাত্রি তে শ্রীকৃষ্ণের জন্মের মুহূর্তে ধর্মীয় গীত গাওয়া, উপবাস, দহি হান্ডি প্রভৃতি।

রাসলীলা তে মূলত শ্রীকৃষ্ণের ছোটবেলার বিভিন্ন ঘটনা দেখানো হয়।

অন্যদিকে দহি হান্ডি প্রথায় অনেক উঁচুতে মাখনের হাড়ি রাখা হয় এবং অনেক ছেলে মিলে মানুষের পিরামিড তৈরি করে সেই হাড়ি ভাঙ্গার চেষ্টা করে। তামিলনাড়ুতে এ প্রথা উড়িয়াদি নামে পরিচিত।

আরও পড়ুন: http://bit.ly/2KQB50B
[Teachers Day 2019] শিক্ষক দিবস কেন পালন করা হয় ও সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

একজন সফল মানুষ ও নাগরিক গঠনে শিক্ষকের ভূমিকা অগ্রগণ্য। শিক্ষক শুধুমাত্র ছাত্রদের পড়াশোনায় সাহায্য করে না, তথাপি তাদের চরিত্র গঠনে এবং ভবিষ্যতে সঠিক লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাহায্য করে। ৫ই সেপ্টেম্বর জাতীয় শিক্ষক দিবস ও ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ এর জন্মদিন হিসেবে উদযাপন করা হয়।

আজ আমরা জাতীয় শিক্ষক দিবস ও ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানব:

ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ ছিলেন একজন দার্শনিক, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী এবং লেখক। বিংশ শতাব্দীতে তিনি দর্শন তত্ত্বের একজন মস্ত বড় পন্ডিত ছিলেন।

শিক্ষক দিবস কবে ও কেন পালন করা হয় ?

তিনি যখন রাষ্ট্রপতি ছিলেন তখন তার কিছু ছাত্র এবং বন্ধু ৫ই সেপ্টেম্বর তাঁর জন্মদিন পালন করার জন্য তাঁকে অনুরোধ করেন। তিনি এর উত্তরে বলেছিলেন, "৫ই সেপ্টেম্বর আমার জন্ম দিবস পালন না করে শিক্ষক দিবস হিসাবে পালন করলে আমি আরও অধিক সম্মানিত বোধ করব।"

সেই থেকে শুরু হয় শিক্ষক দিবস পালন করা যা এখনো সকল ভারতবাসী তাকে সম্মান জানানোর জন্য পালন করে থাকে।

🙌 🙌
আরও পড়ুন: http://bit.ly/2Lhggu8

১) সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ এর জীবনী
২) সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণ এর ১০ টি উক্তি
৩) শিক্ষক দিবসের বক্তৃতা ‼️
৪) শিক্ষক দিবস কেন পালন করা হয়
Channel name was changed to «Adi Sikha»
Channel name was changed to «Adi Sikha - আদি শিখা»
♥️ Attention Please 👍🔥

আমরা সমস্ত টেকনিক্যাল সমস্যার সমাধান করে ফেলেছি।

এখন আপনি আমাদের Website, Facebook Page, Facebook Group, Twitter ও Instagram সবগুলোই ব্যবহার করতে পারবেন এবং বিভিন্ন লেখা পড়তে পারবেন। সাময়িক সমস্যার জন্য দুঃখিত।

নিয়মিত আমাদের লেখার update পাওয়ার জন্য সোস্যাল মিডিয়াতে আমাদের ফলো করুন :

1) Website: https://www.adisikha.com/

2) Twitter : https://www.twitter.com/adisikha

3) Instagram :
https://www.instagram.com/adisikha

4) Telegram : https://t.me/adisikha

ধন্যবাদ,
অমিত মন্ডল।
মহাত্মা গান্ধীর সম্পূর্ণ জীবনী
Mahatma Gandhi Biography in Bengali

জাতির জনক মহাত্মা গান্ধী ভারতীয় রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করে আছেন।

ভারতবর্ষ তথা গোটা বিশ্ব তাকে যে সম্মানের দৃষ্টিতে দেখে এবং তার প্রতি এখনো যে সম্মান প্রদর্শন করে তা না এর পূর্বে কাউকে দেওয়া হয়েছে না ভবিষ্যতে দেওয়া হবে।

রাষ্ট্রপিতা নামে পরিচিত মহাত্মা গান্ধী দেশের মূল ভিত্তির একটি। তার প্রতি সম্মান শুধু ভারতীয়রাই প্রদর্শন করে এমন নয়।ভারতবর্ষের বাইরে অনেক দেশে অনেক মানুষ তার দৃষ্টিভঙ্গি আচার ও বিচার মেনে চলেন।

Mahatma Gandhi এই নামটি শুনলে আমাদের মনে বেশ কিছু প্রশ্ন ভেসে উঠে। যেমন –

১) মহাত্মা গান্ধীর আসল নাম কি

২) মহাত্মা গান্ধীর বাবার নাম কি

৩) তার মা কে ছিলেন

৪) মহাত্মা গান্ধীর স্ত্রী কে ছিলেন

৫) মহাত্মা গান্ধী সাউথ আফ্রিকা কেন গিয়েছিলেন

৬) ওকালতি নিয়ে পড়াশোনা করার পর তিনি হঠাৎ রাজনীতিতে যোগ দিতে গেলেন কেন

৭) মহাত্মা গান্ধীর গুরুদেব কে ছিলেন

৮) কে মহাত্মা গান্ধীকে রাষ্ট্রপিতা ও মহাত্মা নামে প্রথম ডেকেছিলেন

৯) কে গান্ধীজী কে হত্যা করেন

১০) কেন গান্ধীজী হঠ্যাৎ অসহযোগ আন্দোলন বন্ধ করে দিয়েছিলেন

১১)গান্ধীজী কেন মাঝে মাঝে উপবাস করতেন

১২) অন্যান্য ++++

আজ আমরা মহাত্মা গান্ধীর সম্পর্কে জানার সাথে সাথে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করব।

বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন:
https://www.adisikha.com/mahatma-gandhi-biography-bengali/
মহাত্মা গান্ধীর উক্তি ১০১ টি বিখ্যাত উক্তি
Mahatma Gandhi 101 Famous Quotes in Bengali

আজ আমরা মহাত্মা গান্ধীর সংক্ষিপ্ত জীবনী ও মহাত্মা গান্ধীর উক্তি ১০১ টি বিখ্যাত উক্তি (Mahatma Gandhi Quote) সম্পর্কে জানব।

মহাত্মা গান্ধী ভারত বর্ষ তথা গোটা বিশ্বের কাছে সম্মানিত। দেশ বিদেশের অনেক মানুষ তার জীবন আদর্শ ও নীতি মেনে চলেন।

মহাত্মা গান্ধীর সংক্ষিপ্ত জীবনী ও বিখ্যাত ১০১ টি উক্তি

মহাত্মা গান্ধীর সংক্ষিপ্ত জীবনী

মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী যাকে আমরা সবাই মহাত্মা গান্ধী ও বাপুজী বলি, তিনি তিনি 1869 সালের 2nd October গুজরাটের পোরবন্দরে জন্মগ্রহণ করেন।

প্রতি বছর 2nd October গান্ধী জয়ন্তী পালন করা হয়।

তার মায়ের নাম ছিল পুতলি বায়, স্ত্রী কস্তুরবা গান্ধী এবং পিতা করমচাঁদ গান্ধী রাজকোটের দেওয়ান ছিলেন।

তিনি ইংল্যান্ডে ব্যারিস্টারি পাশ করে 1891 সালে ভারতে ফিরে আসেন।

তিনি দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রায় কুড়ি বছর ছিলেন। সেখানে তিনি ট্রেনের ফার্স্ট ক্লাস কামরায় এক ইংরেজ দ্বারা অপমানিত হন।

1915 সালে মহাত্মা গান্ধী ভারতে ফিরে আসেন এবং জাতীয় কংগ্রেসে যোগ দেন।

ইংরেজদের বিরুদ্ধে তিনি বেশকিছু সত্যাগ্রহ আন্দোলন করেন।

তার সুদক্ষ নেতৃত্বে কংগ্রেস ইংরেজ সরকারের বিরুদ্ধে অহিংস ও অসহযোগ আন্দোলন শুরু করেন।

1942 সালে তিনি “ভারত ছাড়ো আন্দোলন” শুরু করেন।

যার ফলে ইংরেজরা ভারত ছাড়তে বাধ্য হয় এবং 1947 সালের 15th August ভারত স্বাধীন হয়।

সম্পূর্ণ জীবন তিনি ভারতবর্ষে সত্য ও অহিংসার প্রতিষ্ঠা করার জন্য সমর্পন করেন।

তিনি লিঙ্গভেদ, বর্ণভেদ, অস্পৃশ্যতা প্রভৃতি সামাজিক ব্যাধির বিরুদ্ধে লড়াই করেন।

তিনি সারাজীবন হিন্দু-মুসলিম একতার জন্য লড়াই করেন।

দুঃখের কথা 1948 সালের 30 শে জানুয়ারি নাথুরাম গডসে তাকে গুলি করে হত্যা করেন।

মহাত্মা গান্ধীর 101 টি বিখ্যাত উক্তি:

1) আমার অনুমতি ছাড়া কেউ আমাকে আঘাত করতে পারবে না।

Nobody can hurt me without my permission.

-Mahatma Gandhi

২) তুমি আমাকে শিকলে বেঁধে রাখতে পারো, তুমি আমাকে কষ্ট দিতে পারো, তুমি আমার এই শরীর নষ্ট করতে পারো, কিন্তু তুমি আমার মনকে কোনদিনই বন্দী করে রাখতে পারবেনা।

You can chain me, you can trouble me, you can ever destroy this body, but you will never imprison my mind.

- Mahatma Gandhi

৩) নিজেকে জানার সর্বশেষ্ঠ পথ হলো নিজেকে অন্যের সেবায় নিয়োজিত করা।

The best way to find yourself is to lose yourself in the service of others.

-Mahatma Gandhi

৪) সামান্য অভ্যাস অধিক উপদেশের থেকে ভালো।

An ounce of patience is worth more than a ton of preaching.

-Mahatma Gandhi

৫) মানুষ তার চিন্তাধারা নির্মিত প্রাণী, সে যা ভাবে তাই হয়ে যায়।

A man is but a product of his thoughts. What he thinks, he becomes.

-Mahatma Gandhi

৬) এমন ভাবে বাঁচো যেন কাল তুমি মরবে। এমনভাবে শেখো যেন তুমি সর্বদা বাঁচবে।

Live as if you were to die tomorrow. Learn as if you were to live forever.

-Mahatma Gandhi

৭) যে দুর্বল সে কোনদিনও ক্ষমা করতে পারে না। ক্ষমা হলো বলবান এর লক্ষণ।

The weak can never forgive. Forgiveness is the attribute of the strong.

-Mahatma Gandhi

৮) প্রথমে তারা তোমাকে অপেক্ষা করবে, তারপর তারা তোমাকে নিয়ে ঠাট্টা করবে, তারপর তারা তোমার সাথে লড়াই করবে, তারপর তুমি বিজয়ী হবে।

First they ignore you, then they laugh at you, then they fight you, then you win.

-Mahatma Gandhi

৯) আপনি নিজে সেই পরিবর্তন হোন যা আপনি সারা বিশ্বে সবার মধ্যে দেখতে চান।

Be the change you want to see in the world.

-Mahatma Gandhi

১০) যেখানেই ভালোবাসা সেখানেই জীবন।

Where there is love there is life.

-Mahatma Gandhi

আরও পড়ুন: https://www.adisikha.com/mahatma-gandhi-quotes/
সবাই কে জানাই শুভ বিজয়ার প্রীতি ও শুভেচ্ছা।
আবার এসো মা।
ভালো থাকবেন।
www.adisikha.com
#DurgaPooja #DurgaPuja #BijayaDasami #HappyDasera #SubhoBijaya #AdiSikha
#ভগবদ_গীতা কি এবং কেন পড়বেন?
# অমিত মন্ডল #AdiSikha

ভগবদ গীতার কথা শুনলে আমাদের মনে সর্বপ্রথম এই প্রশ্ন আসে – ভগবদ গীতা কি এবং কেন পড়ব ?

তাই আজ আমরা এই প্রশ্নের উত্তর জানার চেষ্টা করব এবং আমি চেষ্টা করব যাতে আমি আপনাদের মনের সমস্ত সংশয় দূর করতে পারি।

বর্তমান সময়ে প্রতিটি মানুষ অজ্ঞানতার অন্ধকারে আবদ্ধ। ভগবদ গীতার আসল উদ্দেশ্য হচ্ছে মনুষ্য সমাজকে সেই অন্ধকার থেকে মুক্ত করা।

প্রতিটি মানুষই নানা কারণে দুঃখ ভোগ করছে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে মোহাচ্ছন্ন হওয়ার জন্য আমরা বুঝতেই পারি না কেন আমরা দুঃখ কষ্ট ভোগ করছি।

তবু আমাদের মধ্যে কেউ কেউ বুঝতে পারে কেন সে দুঃখ কষ্ট ভোগ করছে। তখন সে নিজেকে প্রশ্ন করা শুরু করে “আমি কে?” এবং “আমি কেন দুঃখ কষ্ট ভোগ করছি?”

কিন্তু এইরকম মানুষের সংখ্যা খুবই কম। হাজারে হয়ত দুই বা একজন।

আপনি যদি সেই দু-এক জন এর মধ্যে একজন হন তবে আপনাকে জানাই আমার আন্তরিক অভিনন্দন।

আর তা না হলে পড়তে থাকুন।

এই দুই একজন তার দুঃখ কষ্টের কারণ জানার চেষ্টা করে এবং তারপর নিজেকে সেই কষ্ট থেকে উদ্ধার করার পথ খুঁজতে থাকে।

এতক্ষণ আপনি হয়তো মনে মনে নিজেকে প্রশ্ন করা শুরু করেছেন “আমি কে?” এবং “আমি কেন কষ্ট পাচ্ছি?”

এবং তা যদি সত্য হয় তবে আপনি শ্রীমদ্ভগবদগীতা পড়ার এবং তার তাৎপর্য বোঝার যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

মহাভারতের যুগে অর্জুন ছিলেন এমন একজন জিজ্ঞাসু শিক্ষার্থী।

কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের আগে শত্রুপক্ষে নিজের আত্মীয় পরিজন ও বন্ধুবান্ধবকে দেখে এবং যুদ্ধের সময় তাদেরকে হত্যা করার কথা মনে হতেই তিনি বিশাদ ও হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

সাময়িকভাবে তিনি মোহাচ্ছন্ন হয়ে পড়েন।

তিনি শ্রীকৃষ্ণকে জিঞ্জেস করেন কেন তিনি এই জটিল অবস্থায় পড়েছেন এবং কিভাবে তা থেকে উদ্ধার পাওয়া যাবে?

তখন শ্রীকৃষ্ণ অর্জুন তথা আগামী দিনে সাধারণ মানুষের উদ্ধারের জন্য অনেক তত্ত্ব ও জ্ঞানের কথা বর্ণনা করেন যা বর্তমানে শ্রীমদভগবদ্গীতা নামে পরিচিত।

ভগবদ গীতা হিন্দু মহাকাব্য মহাভারতের গুরুত্বপূর্ণ এবং অভিন্ন অঙ্গ।

গীতার উপদেশ মহাভারতের ভীষ্ম পর্বের অন্তর্ভুক্ত।

ভগবদ গীতায় মোট 18 টি অধ্যায় এবং 700 শ্লোক আছে।

পান্ডবদের মধ্যে অধিকার এবং রাজ্যের জন্য লড়াই প্রসঙ্গে ভগবদ গীতার সৃষ্টি।

ধৃতরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ পুত্র দূর্যোধন পান্ডবদের কে তাদের অধিকারের রাজ্য ফিরিয়ে দিতে অসম্মত হয়।

পাণ্ডবরা তাদের রাজ্য ফিরে পাওয়ার জন্য অনেক শান্তিপূর্ণ চেষ্টা করে।

এজন্য তারা ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে কৌরব দের কাছে তাদের দূত হিসেবে প্রেরণ করে। দুর্যোধন তবুও সম্মত হয়নি।

নিজের রাজ্য আর অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য পান্ডবদের সমস্ত প্রচেষ্টা বিফল হয়।

তখন তাদের কাছে কেবল মাত্র একটাই পথ খোলা ছিল – যুদ্ধ।

শেষ পর্যন্ত পাণ্ডবরা নিজেদের অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য যুদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ ভূমিতে পাণ্ডব এবং কৌরব সেনা যুদ্ধ করার জন্য একত্রিত হয়।

পাণ্ডব সেনার প্রধান যোদ্ধা ছিল অর্জুন যিনি সেই সময়ের সর্বশেষ্ঠ ধনুর্ধর ছিলেন।

সবার মনে দৃঢ় বিশ্বাস ছিল যে অর্জুন তাদেরকে এই যুদ্ধে জেতাবে।

এই যুদ্ধে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ স্বয়ং অর্জুনের সারথি হয়।

কিন্তু যখন যুদ্ধ শুরু হবে তখন অর্জুন তার পিতামহ ভীষ্ম, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব তথা অন্যান্যদের কৌরব সেনাতে নিজের সামনে দেখে এবং যুদ্ধে তাদেরকে হত্যা করার কথা মনে আসতেই তিনি বিচলিত হয়ে ওঠেন।

আপনজনদের মোহের কারণে তার মনে এই সন্দেহ তৈরি হয় এবং তিনি নিজের কর্তব্য থেকে বিচ্যুত হয়ে যান।

তিনি যুদ্ধ না করার সিদ্ধান্ত নেন এবং হতাশাগ্রস্ত হয়ে যুদ্ধক্ষেত্রে অস্ত্র ত্যাগ করে নিজের রথে বসে পড়েন।

তখন সেই বিষাদগ্রস্ত অর্জুনকে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ ভূমিতে দুপক্ষের সেনার মাঝখানে ভগবদ গীতার উপদেশ দেন।

Continue reading: https://www.adisikha.com/bhagwat-geeta-bengali/
"Adi Sikha - আদি শিখা" - র সমস্ত লেখার update পাওয়ার জন্য আমাদের Telegram এ join করুন।

- Adisikha Team
The Power of Subconscious Mind: আপনি আপনার চারপাশে লক্ষ্য করলে দেখবেন কিছু মানুষ খুব সফল এবং কিছু মানুষ অসফল, কিছু মানুষের মনের জোর খুব বেশি। আপনি হয়তো লক্ষ্য করেছেন আপনার মা-বাবা সকালে খুব তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠে যায় কিন্তু আপনি তা পারেন না। এমন অনেক মানুষ দেখবেন যারা সহজে ক্লান্ত হয় না এবং যেকোনো কাজ খুব মনোযোগ সহকারে করে।
[ 1,692 more word ]
Click here to read more:
https://www.adisikha.com/the-power-of-subconscious-mind/
জীবনে চলার পথে অনেক সময় আমরা আমাদের অনুপ্রেরণা হারিয়ে ফেলি। তখন আমরা বুজতে পারিনা এই কঠিন সময়ে আমাদের ঠিক কি করা উচিত।

এই রকম কঠিন সময়ে মহাত্মা গান্ধী, স্বামী বিবেকানন্দ, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, এ পি জে আব্দুল কালাম, সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন, নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর মতো মহান মানুষের বলে যাওয়া অনুপ্রেরণামূলক কথাগুলো পুনরায় আমাদের হারিয়ে যাওয়া Motivation ফিরে পেতে সাহায্য করে।

তাই আজ আমরা ডঃ আব্দুল কালাম ও তাঁর ৫১ টি বাছাই করা অনুপ্রেরণামূলক বাণী সম্পর্কে জানব।

পড়ুন: http://bit.ly/apj-abdul-kalam-bani
[Best] Love Quotes in Bengali for Girlfriend অনেক সময় আমাদের প্রিয় জন ছোট ছোট বিষয় নিয়ে আমাদের ওপর অভিমান করে। তখন তাদের অভিমান ভাঙানো খুব কঠিন হয়ে যায়।

তাই আজ আমরা ১০১ টি Best love quotes in Bengali সম্পর্কে জানব, যা প্রিয় জনের অভিমান ভাঙাতে সাহায্য করবে।

1. “আমি কি তোমার কাছে একটা Kiss ধার নিতে পারি,… কথা দিচ্ছি, খুব তাড়াতাড়ি ফেরত দিয়ে দেব।”

2. “যখন আমি বলি, আমি তোমাকে ভালোবাসি, তখন তা আমি অভ্যাসের বশে বলি না, তখন আমি তোমাকে মনে করিয়ে দিই যে তুমিই আমার জীবন।”

3. “যারা বেশি কথা বলে, তাদের চুপ করানোর জন্য চুম্বন, প্রকৃতির দ্বারা সৃষ্ট শ্রেষ্ট উপহার।”

আরও ৯৮ টি পড়ুন: http://bit.ly/love-quotes-in-bengali
আমি আজ আপনাদের এমন কিছু কারন বলব যার জন্য কিছু মানুষ সারা জীবন মধ্যবিত্ত বা গরিব থেকে যায়। কিন্তু কিছু মানুষ গরিব থেকে ধনী হয়ে যায়।

আমরা শিক্ষা, চাকরি এবং টাকা পয়সা অর্জন করার জন্য ১৫ থেকে ২০ বছর পড়াশোনা করি।

কিন্তু সব থেকে বড় ভাবনার বিষয় হল এই সময়ই আমরা কখনও কিভাবে ধনী হওয়া যায় তা নিয়ে ভাবি না।

ধনী হওয়ার শিক্ষা না দেওয়া হয় স্কুল-কলেজে, না দেওয়া হয় আমাদের পরিবার থেকে – বিশেষ করে গরীব এবং মধ্যবিত্ত পরিবারে।

এজন্য আমি আজ আপনাদের সাথে এই বিষয়ে Robert T. Kiyosaki র লেখা বিখ্যাত বই Rich Dad Poor Dad থেকে কিছু কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

সম্পূর্ণ লেখা পড়ুন: http://bit.ly/rich-dad-poor-dad-summary-bengali
"পৃথিবীতে সকলের চেয়ে বড়ো জিনিস
আমরা যাহা কিছু পাই
তাহা বিনামূল্যেই পাইয়া থাকি,
তাহার জন্য দরদস্তুর করিতে হয় না।
মূল্য চুকাইতে হয় না বলিয়াই জিনিসটা যে
কত বড়ো তাহা আমরা সম্পূর্ণ বুঝিতেই পারি না।''
- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

Rabindranath Tagore Quotes in Bengali

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অন্যান্য উক্তি পড়ুন:
https://adisikha.com/rabindranath-tagore-quotes-in-bengali/ali/